মাহে রমজানের শুভেচ্ছা

সবাইকে মাহে রমজানের শুভেচ্ছা। পবিত্র রমজানের সিয়াম সাধনায় সিগ্ধ হোক সকলের দেহ ও মন। পবিত্র রমযান মাস আসলে স্বাভাবিক আহার, নিদ্রা, নিয়ম-নীতির কিছুটা ব্যতয় ঘটে। এরপর ও একজন রোজাদার কিছু পরামর্শ অনুসরণ করে সুস্থ, সবল থাকতে পারেন।

ইফতারের সময় করণীয়ঃ
• ইফতারের পর একটু হাঁটলে খাবারগুলো ভালো ভাবে হজম হয়
• স্বাস্থসম্মত উপায়ে তৈরি ইফতার করা
• ইফতারে মাগরিবের নামাজের আগে সব খাবার এত দ্রুত খাওয়া সম্ভব হয়না তাই প্রথমে খেজুর, স্যুপ, ফল, সালাদ ইত্যাদি খেয়ে নামাজের পরে অন্য খাবার খেলে এই সময়ের মাঝে খাবার গুলো হজম হয়।
• ইফতারের সময় থেকে সেহেরি খাওয়া পর্যন্ত অন্তত ৭-৮ গ্লাস পানি পান করতে হবে
• মাথা ব্যাথা বা ঘুম এড়ানোর জন্য কফি খাওয়ার অভ্যাস থাকলে রোজায় চেষ্টা করুন সেটা বাদ দিয়ে দিতে বা কমিয়ে দিতে
• ইফতার ধীরে ধীরে সময় নিয়ে চিবিয়ে খেতে হবে
• গরম স্যুপ দিয়ে ইফতার শুরু করলে সারাদিন রোজা রাখার পর তা আপনার দেহকে সতেজ করে এবং পরিপাকতন্ত্রকে খাবার হজমের জন্য তৈরী করে

সেহরীর সময় করণীয়ঃ
• রোজায় সেহেরীর খাবার অনেকেই খান না, যা ঠিক নয়। কারণ সেহেরীর খাবারটা সারাদিনের রোজাকে সহজ ও সহনীয় করতে এবং জীবনীশক্তি ও কাজের শক্তি বজায় রাখার জন্য অত্যাবশ্যকীয়
• এই সময়ের খাবারে ভাত, রুটি বা ধীরে ধীরে শোষিত হয় এমন শর্করা সমৃদ্ধ খাবার নিশ্চিত করুন
• মাংস, ডাল, ডিম, দুধের তৈরি জিনিসগুলো প্রোটিনের খুব ভাল উৎস। চেষ্টা করুন এর যেকোন একটি প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখার জন্য
• সালাদ বা স্বাস্থ্যকর খাবারে সৃজনশীল হোন

Facebook Comments
Share This Post
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *